সদ্যজাত বাছুরের দু’টো মাথা, অবাক কান্ড অন্ধ্রপ্রদেশে

0
2

কথায় আছে না, “প্রকৃতির খেলা”, মাঝেমধ্যে এই প্রকৃতির খেলা চিরাচরিত ধারায় না বয়ে উল্টো ধারায় বইতেও পারে। এমনই এক ঘটনার সাক্ষী রইল সারা অন্ধ্রপ্রদেশ। একটি বাছুরের দুটো মাথা। অন্ধ্রপ্রদেশের কৃষ্ণা জেলার রেডিকুডা অঞ্চলে ঘটল এমনই এক ঘটনা। একটি মাসের বাচ্চা ভূমিষ্ঠ হবার পরে দেখা যায় বাছুরটি অন্যান্যদের মত স্বাভাবিক নয়। একটি মাথার বদলে তার আছে দুটি মাথা।

কৃষ্ণা জেলার রেডিকুডা অঞ্চলের অন্তর্গত রুদ্রভরম গ্রামের বাসিন্দা পেশায় কৃষক ভেঙ্কটেশ্বরা রাও। তারি বাড়িতে এক মহিষের গর্ভ থেকে জন্ম নিল অস্বাভাবিক বাছুর। বাছুরটি ভূমিষ্ঠ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়িতে লোকজনের ভিড় লেগে যায়। শুধু সেই গ্রাম থেকেই নয় আশেপাশের অনেক গ্রাম থেকে আকাঙ্ক্ষিত জনতা ছুটে আসে এই দুমুখো বাছুরকে দেখতে। অন্ধ্রপ্রদেশের ওই কৃষকের বাড়িতে একেবারে হই হই কান্ড। এমন দৃশ্য আগে কখনো কেউ দেখেনি।

তবে এটা যে প্রথমবার এমনটা নয়। এই মহিষ আগে একটি বাছুরের জন্ম দিয়েছিল। আগের বাছুরটির গায়ের রং ছিল সবুজ। এমনটাই জানিয়েছে মহিষের মালিক ভেঙ্কটেশ্বরা। তখন ওই সবুজ রঙের বাছুরটিকে দেখে পশু চিকিৎসকরা হতবাক হয়ে যান। কালো রঙের মহিষের এমন অদ্ভুত রঙের বাছুর হওয়ার খবরটি প্রকাশ্যে আসতে গ্রামবাসীরা দলে দলে বাছুর দেখতে যোগদান করে। পশু চিকিৎসকেরাও পৌঁছে গিয়েছেন ভেঙ্কটেশ্বরার বাড়িতে। তারা গবেষণা করার চেষ্টা করছেন, হঠাৎ কি কারণে স্বাভাবিক এক মহিষের দু-দুবার এমন অদ্ভুত বাছুর জন্ম নিয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি আসতেই ভাইরাল হয়েছে। ভিডিও দেখে সকলে অবাক হচ্ছেন এমন বাছুর কি করে হতে পারে এই ভেবে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তি ভিডিও করার জন্যই বাছুরের দুটো মাথা একসাথে তুলে দেখাচ্ছেন। এটাও কি প্রকৃতির খেলা?