এই মেশিনটি দিয়ে মাত্র ১০ মিনিটে ১ বিঘা জমিতে ধান রোপন করা যায়, একটি স্মার্ট ফোন দিয়েই পরিচালনা করা যাবে মেশিনটি রইল ভিডিও।

0
2

মানব সভ্যতার আদিকাল থেকেই মানুষ কৃষিকাজ এর সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। পৃথিবীতে আমরা একটা সময় ছিল যখন মানুষ

পৃথিবীতে জীবন ধারণ করার জন্য বন্যপ্রাণী শিকার এবং কৃষি কাজ করত। এছাড়া তখন অন্য কোন পেশা ছিল না তাদের কাছে।

তারই ধারাবাহিকতায় এখন পর্যন্ত পৃথিবী অধিকাংশ মানুষ কোন না কোনভাবে কৃষি কাজের সাথে জড়িয়ে রয়েছে। কৃষি কাজের মধ্যে

অন্যতম একটি কাজ হচ্ছে ফসল ফলানো।আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষই কৃষি কাজের সাথে জড়িত।

আদিকাল থেকে আজ পর্যন্ত মানুষের মধ্যে কৃষিকাজ পরিবর্তন না হলেও কৃষি কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম অর্থাৎ টেকনোলজি অবশ্যই

পরিবর্তন হয়েছে।আজকে টেকনোলজির উন্নতির ফলে কৃষিকার্যে ব্যবহৃত সরঞ্জামাদির উন্নত হয়েছে ব্যাপকভাবে ।উন্নত সরঞ্জামাদি

ব্যবহারের ফলে কৃষিকাজে সময় এবং জনবলের ব্যবহার কমিয়ে আনা হয়েছে ।যার মাধ্যমে কৃষিকাজকে আরো সহজ করে তোলা হয়েছে।

আমরা বিভিন্ন সময় ইউটিউব কিংবা বিভিন্ন গণমাধ্যমের বিভিন্ন ভিডিওতে টেকনোলজীর বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সম্পর্কে জানতে পারি।

ঠিক তেমনি আজকের এই ভিডিওটিতে কৃষি কাজে ব্যবহৃত কিছু উন্নত টেকনোলজির চিত্র ধারণ করা হয়েছে এবং এর কার্যপদ্ধতি

বর্ণনা করা হয়েছে। অটোমেটিক রাইস প্লান্টিং মেশিনঃ এই মেশিনটি সাধারণত ধানের চারা রোপণের কাজে ব্যবহার করা হয়। সাধারণ

পদ্ধতিতে ধানের চারা রোপন অনেক সময় ব্যয় হয়ে থাকে।

এবং প্রয়োজন হয় অনেক লেবারের। এই মেশিন সম্পূর্ণ জিপিএস টেকনোলজিতে কাজ করে। এ মেশিনটি চালাতে কোন ড্রাইভার এর

প্রয়োজন হয় না। এ মেশিনটি পরিচালনা করতে শুধু একটি মোবাইলের প্রয়োজন। মোবাইলের সাথে কানেক্ট করে এটিকে সুন্দরভাবে

পরিচালনা করা যায়। আগাছা দমনের মেশিনঃ ধান রোপন করার কিছুদিন পরে আগাছা দমন করার কাজ শুরু হয়। সাধারণত মানুষ

হাত দিয়ে আগাছা দমন করে থাকে। তবে এই মেশিন দ্বারা খুব সহজে অল্প সময়ে অধিক ধানের আগাছা দমন করা সম্ভব।

এছাড়া এই মেশিনটি যখন ধানের ক্ষেতের উপর দিয়ে নেয়া হয় তখন এর মধ্যে থাকা অন্যান্য সকল বর্জ্যপদার্থকেও দূর করা হয়। সিট

ড্রিল মেশিনঃ আদি যুগ থেকেই কৃষি কাজের জন্য গরুর ব্যবহার করা হয়ে থাকে। গরু দিয়ে হাল চাষ করার সাথে নাঙ্গল ওতপ্রোতভাবে

জড়িত। এই মেশিনটি দেখতে অনেকটা নাঙ্গল এর মত যারা দ্বারা খুব কম সময়ে বিভিন্ন বীজ রোপন করা সম্ভব। বীজ বপনের সাথে

সাথে এই মেশিন দ্বারা স্যার প্রয়োগ করা সম্ভব।

হ্যান্ড ওইডিং মেশিন: উচ্চ জমিগুলোতে যখন ধান চাষ করা হয় তখন ওই ধানক্ষেতে প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ধরনের আগাছা জন্মায়। সে আগাছা দমনে এই মেশিন ব্যবহার করা হয়। কৃষিকাজে হেলিকপ্টার ব্যবহারঃ ধানক্ষেতে কীটনাশক এবং সার প্রয়োগ করার জন্য এই হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। হেলিকপ্টারের আকার অনেক ছোট হয়ে থাকে। এর দ্বারা বিভিন্ন ক্ষেত্রে কীটনাশক ও সার প্রয়োগ করার জন্য ব্যবহার করা হয়।তবে এই পদ্ধতিটা খুব ব্যয়বহুল যার জন্য সকলেই এই টেকনোলজি ব্যবহার করতে পারে না।

হেলিকপ্টারটি একটি রিমোট কন্ট্রোল হেলিকপ্টার। যারা খুব সহজে অল্প সময়ে অধিক কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব। রোবটিক রাইস কাটার মেশিনঃ এই মেশিন দ্বারা ধান কাটা হয়ে থাকে। এটি একটি অটোমেটিক মেশিন যা মানুষের সাহায্য ছাড়াই নিজে নিজে ধান কাটতে পারে এবং ধানের আঁটি বাদতে পারে। এ মেশিন দ্বারা একসঙ্গে দুই কাজ হয়ে থাকে।এই মেশিনের সাহায্যে খুব কম সময়ে অধিক ধান কাটা সম্ভব।

বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুনঃ